রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
Logo রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক একীভূতকরণের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন Logo যত ক্ষমতাধরই হোক রাজশাহীতে দুর্নীতিবাজকে প্রতিরোধ করা হবে Logo বদলী করায় কারারক্ষীর রোষানলে উর্ধতন কর্মকর্তারা, হয়রানিসহ মিথ্যাচারের অভিযোগ Logo প্রেমের ফাঁদে ফেলে প্রতারণা , লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রাহী ইসলাম নামক এক নারীর বিরুদ্ধে।। Logo তানোর পৌরসভায় কর আদায়কারী মনিরুলের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ Logo চারঘাটে ফেন্সিডিলসহ ডিবি’র হাতে বাবা-ছেলে আটক,টাকার বিনিময়ে ছাড়া পেলো ছেলে Logo ইউসেপ রাজশাহী কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ২০২৪ Logo নাটোরে দই ও বেকারি কারখানায় বিএসটিআইয়ের মামলা দায়ের, ২০,০০০/- জরিমানা। Logo যুবলীগের সাবেক সভাপতি’র নেতৃত্বে কামারুজ্জামান হেনার ১০১তম জন্মবার্ষিকীতে খাবার বিতরণ Logo রাজশাহীতে গৃহবধূকে হত্যা করে আত্মহত্যা হিসেবে চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ

তীব্র তাপদাহে তৃষ্ণা মেটাবে পাখি ও পথের কুকুর

আর.বি.এস পাভেল / ৪৪ বার পড়া হয়েছে
আপডেট : শুক্রবার, ৩ মে, ২০২৪, ৪:১০ অপরাহ্ন

একসময় চারিদিকে ছিলো পুকুর আর প্রাকৃতিক জলাধার, অনেক বড় বড় গাছ ছিলো এই শহর জুড়ে। শীত কিংবা গরমে এমনকি তীব্র তাপদাহের সময় এসকল বৃক্ষ লতাপাতায় প্রাণ জুড়াতো মানুষসহ অন্যান্য প্রাণী ও পাখিরা।

প্রাকৃতিক জলাধার পুকুড় দীঘিগুলোতে তৃষ্ণা মেটাতো পাখি ও শহর বন্যপ্রাণী গুলো। কিন্তু এগুলো কমে যাবার কারনে তীব্র তাপপ্রবাহের সময় রাজশাহী শহরে এসকল প্রাণের সমস্যা বেশি বেড়ে গেছে। আমরা চাই এসকল আর যেনো ধ্বংস না করা হয়। কথাগুলো বলছিলেন – রাজশাহী স্বেচ্ছাসেবী যুব সংগঠন জিরো পয়েন্ট সিক্স জিআর জেড এর সভাপতি জুবায়ের হোসেন। সাথে ছিলেন গ্রাভিটি রাইডার্স এর সকল মেম্বার যারা নিরলস চেষ্টা করে গেছেন ইভেন্টি সাকসেস করার জন্য এবং আরো সাথে ছিলেন কনটেন্ট ক্রিয়েটর সাকিব

আজ ( ০২ মে, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায়) রাজশাহী বড়কুঠি পদ্মা পার্কে তীব্র তাপদাহে তৃষ্ণা মেটাবে পাখি ও পথের কুকুর এই শিরোনামে রাজশাহী স্বেচ্ছাসেবী যুব সংগঠনেগুলোর আয়োজনে পথের কুকুর এবং পাখির জন্য পানির ব্যবস্থা করেন ।

পথের পাশে মাটির ডোগাতে পানি এবং গাছে ডোগা বেধে তাতে ঠান্ডা পানি সরবরাহের ব্যবস্থা করেন যুবরা। এতে অংশ নেয় রাজশাহী বিভাগের বৃহৎ যুব ঐক্য বরেন্দ্র ইয়ুথ ফোরামের যুব সদস্যগণ। একই সাথে তারা হালে প্লেকার্ড ফেস্টুন নিয়ে জলবায়ু পরিবর্তনে ধনী দেশগুলোর প্রতি দায়িত্বশীল আচরণ করার কথা বলেন। তারা রাজশাহী শহরের প্রাকৃতিক জলাধারগুলোর সুরক্ষা, পুকুর খনন বন্ধসহ এই নগরীর আর একটি বৃক্ষ কর্তন যাতে না হয় সেই দাবি তুলে ধরেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বারসিকের গবেষক ও আঞ্চলিক সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন- আমাদের চারিপাশটা যতোই বৃক্ষ শুন্য এবং প্রাকৃতিক জলাধাগুলো নষ্ট করে ফেলছি ততোই আমরা সবাই ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। তিনি আরো বলেন শুধু মানুষ নয়, এখানে বন্য প্রাণী এবং পাখিগুলোর সংকট আরো বেশি দেখা দিয়েছে।

এভাবে প্রকৃতির ভারসাম্য নষ্ট হলে আমরা আরো ক্ষীতর শিকার হবো। এররকম দুর্যোগের , তীব্র তাপপ্রবাহে এই প্রাকৃতিক সম্পদগুলোই আমাদের সুরক্ষা দিয়ে থাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
Design & Developed by : Ecare Solutions